শুক্রবার, এপ্রিল ৯

মুক্তমত

লকডাউনে বন্ধ থাকবে বইমেলা, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত রোববার

লকডাউনে বন্ধ থাকবে বইমেলা, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত রোববার

গ্যালারী, মুক্তমত, সারাদেশ
নিউজ ডেস্কঃ লকডাউনের সময় বন্ধ থাকবে বইমেলা। রোববার (০৪ এপ্রিল) এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। শনিবার (০৩ এপ্রিল) বিকেলে সময় সংবাদকে এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি। এর আগে সোমবার (০৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারা দেশে লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। একই দিন সকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নিজ বাসভবনে এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। দুপুরে গণমাধ্যমকে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান, লকডাউন চলাকালে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান, কাঁচাবাজার ওষুধ ও খাবারের দোকানের পাশাপাশি পোশাক এবং অন্যান্য শিল্পকারখানা খোলা থাকবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা চাচ্ছি লকডাউনে যেন মানুষের চলাচল যতটা সম্ভব বন্ধ করা যায়। কারণ, যেভাবে করোনা ছড়াচ্ছে তাতে মানুষের ঘরে থাকা জরুরি। তবে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান, কাঁচাবাজার, খাবার ও ওষ...
রাস্তায় ফেলে রাখা বৃদ্ধ নারীর পাশে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি দায়ভার বহনের আশ্বাস নির্বাহী অফিসারের

রাস্তায় ফেলে রাখা বৃদ্ধ নারীর পাশে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি দায়ভার বহনের আশ্বাস নির্বাহী অফিসারের

গ্যালারী, বাংলাদেশ, মুক্তমত, সারাদেশ
নিউজ ডেস্কঃ রাস্তায় ফেলে রাখা বৃদ্ধ নারীর পাশে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি। আজ বুধবার দুপুরে জেলার হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতারা উপস্থিত হয়ে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন। এসময় খবর পেয়ে ছুটে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ থানা পুলিশের কর্মকর্তারা। আশ^স্ত করা হয় তার বাকি জীবনের দায়ভার বহনের। জেলার হরিপুর উপজেলার বকুয়া ইউনিয়নের মৃত কেংকর আলীর স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৭০) এক ছেলেকে নিয়ে বসবাস করতো নারগুন গ্রামে। এর মধ্যে ছেলে আব্দুস ছালাম (২৫) ঢাকায় কাজের সন্ধ্যানে গিয়ে মারা যায়। পরে প্রতিবেশী তোফায়েল হোসেন ওই বৃদ্ধ নারীকে ভুলিয়ে ভালিয়ে তার বাকি জীবন দেখভালের কথা বলে বসতভিটাসহ ৬ বিঘা জমি রেস্ট্রি করে নেয়। এ বিষয়ে হরিপুর থানায় একাধিকবার গিয়েও কোন বিচার পায়নি। পরে গত ১৫ ডিসেম্বর রাতে ওই ইউনিয়নের ঘাগড় তলা রাস্তায় পরে থাকা অসুস্থ্য অবস্থায় ফেলে দেয় তোফায়েলসহ কয়েকজন। পরে পথ...
ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি’র সভাপতি ভূট্টো-সম্পাদক লিটু

ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি’র সভাপতি ভূট্টো-সম্পাদক লিটু

গ্যালারী, বাংলাদেশ, মুক্তমত, সারাদেশ
নিউজ ডেস্কঃ ঠাকুরগাঁওসহ সারা দেশে গণমাধ্যমকর্মীরা অধিকার বঞ্চিত ও নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছে। অধিকার বঞ্চিত ও নির্যাতনের শিকার সংবাদকর্মীর কল্যাণের স্বার্থে জেলায় কর্মরত ইলেক্ট্রনিক প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সম্পাদক, প্রকাশক, প্রতিনিধিগণকে নিয়ে ২০২০ সালের ১’লা জুলাই ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি(টিআরইউ) যাত্রা শুরু করে। শুক্রবার (১৫ জানুয়ারী) দুপুরে ঠাকুরগাঁও বলাকা উদ্যানে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি(টিআরইউ)’র সাংগঠনিক সভা আহবানের মধ্য দিয়ে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। ৩৮ জনকে সাধারণ সদস্য উল্লেখ করে ৫৫ সদস্যের কমিটি ঘোষনা করা হয়। কার্যকরী পরিষদের সদস্যরা হলেন- সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো (জিটিভি ও সারাবাংলা), সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ লিটু (বাংলাদেশ প্রতিনিদিন ও নিউজ২৪), সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার হাসিনুর রহমান(মুক্ত কলম), রেজাউল করিম প্রধান (মানবজমিন), সহ-সাধারণ সম্পা...
৩ ডিসেম্বরের বোধোদয় -আবু মহী উদ্দীন

৩ ডিসেম্বরের বোধোদয় -আবু মহী উদ্দীন

মুক্তমত
প্রিয় মাতৃভুমি বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয় হয়েছিল ১৬ ডিসেম্বর ১৭৯৭১। ঠাকুরগাঁও এর বীর মুক্তিযোদ্ধারা তার আগে ৩ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও জেলাকে পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত করতে সক্ষম হয়। দিবসটি গৌরবের এবং গর্বের। দিনটি সাড়ম্বরে উদযাপন হবার কথা ৭২ সাল থেকেই। কিন্তু ঠাকুরগাঁয়ে তা হয়নি। শুরু হয়েছে স্বাধীনতার ৪০ বছর পর। তাও তারিখটি সুনির্দিষ্ট ছিলনা। তারিখটি সুস্পষ্ট করতে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকগণ , বীর মুক্তিযোদ্ধা , সুশীল সমাজ অবশেষে জাতীয় মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর পর্যন্ত যোগাযোগ করতে হয়েছিল । কাজটি করেছিল ঠাকুরগাঁয়ের উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী। ২০১০ সালে ঠাকুরগাঁওয়ে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী পুনর্গঠিত হলে স্বাধীনতার ৪০ তম বছরে ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো সাড়ম্বরে উদযাপন শুরু হয় ৩ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও পাকিস্তান হানাদার মুক্ত দিবস। বিষয়টিতে ব্যপক সাড়া পরে। সর্বস্তরের মানুষ সাধুবাদ জানায় এবং স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণ করে। ...
বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডঃ বিশ্ব নের্তৃবৃন্দের প্রতিক্রিয়া -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডঃ বিশ্ব নের্তৃবৃন্দের প্রতিক্রিয়া -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

গ্যালারী, জাতীয়, মুক্তমত
১৯২০ সালে যে শিশু ‘খোকা’ , পরে শেখ মুজিবুর রহমান, পাকিস্তানী শাসন শোষণের বিরুদ্ধে ২৪ বছর ধরে গোটা বাঙ্গালী জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। ৬৬ সালে বাঙ্গালী জাতির মুক্তির সনদ ঐতিহাসিক ৬ দফা উপস্থাপন করেছিলেন , ৭০ এর নির্বাচনে তাঁর দল আওয়ামী লীগকে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিংষ্ঠতা দিয়েছিলেন , জাতিকে নির্দেশনা দিয়েছিলেন ৭১ এর ৭ মার্চে , বাংলার স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন ২৬ মার্চে , তাঁর নামেই পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধ শেষে আমরা বিজয়ী হয়েছি। কৃতজ্ঞ বাংঙ্গালী জাতি তাঁকে বঙ্গবন্ধু উপাধিতে ভুষিত করেছে , জাতির জনক হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে , বিশ্ববাসী তাঁকে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। বাংঙ্গালী জাতির মুক্তির আকাংখায় ১৮ বারে ১৪ বছর জেল খেটেছেন , ২ বার মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরে এসেছেন । যিনি বিশ্বাস করতেন কোন বাঙ্গালী তাঁকে আঘাত করতে পারেনা , তিনি শতাব্দির মহানায়ক , বাঙ্গালী জাতির স্বাধীনতার স্থপতি বঙ...
নভেল করোনা নিয়ে কবিতা লেখক-আরিফুল আলম

নভেল করোনা নিয়ে কবিতা লেখক-আরিফুল আলম

গ্যালারী, মুক্তমত
ভাবনাতে দেশ আমার, হৃদয়ে ব্যাকুলতা। রক্ষা করো হে সৃষ্টিকর্তা, ফিরিয়ে দাও স্বাভাবিকতা। আমার এই সোনার দেশে, মায়াবী ঘাতক বেশে। দিয়েছে হানা- COVID 19 নভেল করোনা। বেড়েছে সামাজিক দূরত্ব- হারিয়েছে মানুষ ভ্রাতিত্ব। খুঁজি মুক্তির বার্তা- কবে জিতবে মানবতা। করোনার এই সময়ে, দেশ সেবার সহজ সুযোগ পেয়ে। ঘরে থাকার সামান্য নির্দেশনা, মানতে কেন পারি না। ভুলে গেলাম দেশ- পরিবার, নিজের কথা। অবাধ বিচরণে ঝুঁকিতে, আজ দেশের আমজনতা। মহামারির এই ক্রান্তি কালে, মানব সেবার কথা ভুলে। জ্ঞানপাপী কিছু জননেতা, চুরি করে গরিবের ত্রাণ সহায়তা। করোনা চিনিয়েছে- সময়ের দাবি বুঝিয়েছে- কে নকল, কে আসল নেতা। প্রাণঘাতী এই মায়াবী করোনার বিরুদ্ধে, লড়াই করছে যারা সম্মুখ যুদ্ধে। সেলুট জানাই সেই বীরদের প্রতি, কৃতজ্ঞচিত্তে পুরো বাঙালি জাতি। খুলবে লক ডাউনের তালা- আসবে কর্মব্যস্ততার পালা। ফিরে পাব আবার মুক্ত স্বাধীনতা। করোনার এই কা...
সচেতনতা বৃদ্ধিতে মফস্বল সাংবাদিকরা  তবুও কতটুকু সচেতন মানুষ

সচেতনতা বৃদ্ধিতে মফস্বল সাংবাদিকরা তবুও কতটুকু সচেতন মানুষ

গ্যালারী, মুক্তমত
সবাই বলেন সাংবাদিকতা পেশা একটি মহান পেশা। এ পেশায় তাদের দায়ীত্ববোধও অনেক বেশি। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে যেমন রাস্ট্রের গতিপথকে চলতে সহায়তা করে। তেমনি আইনশৃংখলা বাহীনির নজরে এনে তা যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ারও সহায়তার পথ উন্মোচন করে। এছাড়া মানুষের মৌলিক অধিকারগুলোকে প্রতিষ্ঠিত করা গুরুত্ববহন করে। এছাড়া সমাজের নানা অসঙ্গতি, রাজনৈতিক ও সামাজিক কার্যক্রমের ভুমিকা তুলে ধরার মাধ্যমেও দেশকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করে। কিন্তু অন্যান্য সময়ের চেয়ে দেশে করোনার ভাইরাস সংক্রামনের শুরু থেকেই মফস্বলের সংবাদকর্মীদের এ পেশায় বড় চ্যালেন্স হয়ে দাড়িয়েছে। তার কারন হচ্ছে একজন মফস্বল গণমাধ্যমকর্মীকে জেলার সব ধরনের সংবাদ পরিবেশনের তথ্য উপাত্ত্ব সংগ্রহ করতে হয়। যেমন খেলাখুলা, রাজনীতি, হাটবাজার, সামাজিক পেক্ষাপটসহ সমাজে যে কোন ঘটনা ঘটলে একজন মফস্বল সংবাদকর্মীকেই তা তুলে ধরতে হয়। আমরা যতদুর জানি আমাদেরই সহকর্মী রাজ...
বিশ্ব ভ্যাকসিন সম্মেলনে ৮৮০ কোটি ডলারের তহবিলের প্রতিশ্রুতি

বিশ্ব ভ্যাকসিন সম্মেলনে ৮৮০ কোটি ডলারের তহবিলের প্রতিশ্রুতি

গ্যালারী, মুক্তমত
নিউজ ডেস্কঃ বিশ্ব ভ্যাকসিন সম্মেলনে বিশ্বের ৩০ কোটি শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সহায়তার জন্য ৮৮০ কোটি ডলারের তহবিলের প্রতিশ্রুতি এসেছে। প্রথমবারের মতো অনলাইনে সম্পন্ন হলো বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানসহ উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তিদের নিয়ে এমন সম্মেলন। এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত বৃহস্পতিবার (৪ জুন) গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (গ্যাভি) আয়োজিত ভার্চুয়াল সম্মেলনে এই তহবিলের প্রতিশ্রুতি আসে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। ২০২৫ সাল নাগাদ হাম, পোলিও ও ডিপথেরিয়ার মতো রোগের বিরুদ্ধে বিশ্বের দরিদ্রতম দেশগুলোর শিশুদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অবকাঠামো নির্মাণসহ স্বাস্থ্য সেবার সহায়তায় এই তহবিল ব্যয় হবে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে ৩৫ রাষ্ট্রপ্রধ...
করোনা ও বিশ্ব পরিবেশ দিবস -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

করোনা ও বিশ্ব পরিবেশ দিবস -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

গ্যালারী, মুক্তমত
৫ জুন , বিশ্ব পরিবেশ দিবস। বর্তমানে সারা বিশ্ব করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত। আমরাতো দুরের কথা , দুনিয়ার উন্নত ,সভ্য , মোড়ল দেশ ও কুপোকাত হয়েছে। মৃত্যুর মিছিল ঠেকানো যাচ্ছেনা। দুনিয়ার মানুষ এখন ঘরবন্দি। সব প্রানী বাইরে , কেবল মানুষ বাইরে থাকতে পারছেনা। অস্ত্রপাতি কোন কাজে আসছেনা। প্রমান হয়েছে অস্ত্র মুল শক্তি নয় , শক্তি মানুষের স্বাস্থ্য। জনস্বাস্থ্যের উপর নজর দেওয়া জরুরী। কম্বোডিয়া , ভিয়েতনাম , কিউবা তা প্রমান করেছে। পৃথিবীর দেশ সমুহ তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনায় বিষয়টি বিবেচনায় রাখবে বলে আশা করা যায়। গত ৫ মাসে দুনিয়ার পরিবেশের একটা ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। এই পরিবর্তনের কারণে কলকারখানা যানবাহন , মানুষ পরিবেশের ক্ষতিকারক কোন কাজ করতে পারেনি। পাখীরা ফিরে এসেছে। গাছগুলি সতেজ হয়েছে। কার্বন নিঃস্বরণ বšধ হয়েছে। করোনা আমাদের পরিবেশের উন্নয়ন ঘটিয়েছে এবং চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছে মনুষ্য প্রজাতিকে বাঁচাত...
নাগরিক ভাবনা- শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চা এবং জাতীর প্রাপ্তিযোগ -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

নাগরিক ভাবনা- শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চা এবং জাতীর প্রাপ্তিযোগ -অ্যাডভোকেট আবু মহী উদ্দীন

গ্যালারী, মুক্তমত
ক্রীড়া ও সংস্কৃতির অধিক্ষেত্র সর্বত্র। স্কুল কলেজ ,মাদরাসা , ক্লাব, পাড়া. মহল্লা ছাত্র ছাত্রী , সাধারণ মানুষ , ছেলে বুড়ো সবাই খেলে। মানব শিশূ জন্মগ্রহণ করলে তাকে কোন জ্ঞানের কথা বলা হয়না। খেলানো হয় , সুর শেখানো হয়। শিশু একটু চোখ মেলে দেখা শিখলে তাকে উপহার দেওয়া হয় খেলনা। আয়োজন করা হয় গান বাজনার। স্কুলের লেখাপড়া শুরু হয় প্লে ক্লাশ থেকে। সেখানে খেলাধুলা আর গান বাজনা। খেলা বা সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে কোন নির্ধারিত জনসংখ্যা লাগেনা। একজনেও তার চর্চা করা যায়। হাঁটা একটি খেলা । গান গাওয়াও ব্যক্তিগত বিষয়। দুটি কাজই একজনে বা দলগতভাবে করা যায় তবে উপভোগ করে আনন্দ লাভ করতে পারেন অনেকে। শরীরিক এবং মানষিক বিকাশের জন্য ক্রীড়া এবং সংস্কৃতি চর্চার কোন বিকল্প আজো আবিস্কার হয়নি। জাতীয় স্বাস্থ্য গঠনে খেলার যেমন প্রয়োজন তেমনি মানবিক মুল্যবোধ সম্পন্ন জাতি গঠনে সংস্কৃতি চর্চার প্রয়োজন অপরসীম। খেলাধুলা কী উপকার ...