গ্যালারী রংপুর সারাদেশ

রেল দূর্ঘটনায় ঠাকুরগাঁওয়ে সরকারি দুই কর্মচারির মৃত্যু শোকাবহ পরিবেশ এলাকা জুড়ে

নিউজ ডেস্কঃ ঠাকুরগাঁওয়ে রেলে কাটা পরে সরকারি দুই কর্মচারির মৃত্যুর ঘটনায় শোকে স্তদ্ধ পরিবার ও স্বজনরা। এ ঘটনার পর প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরির্দশ করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। এমন অনাকাঙ্খিত মুত্যু যেন কোনভাবেই মানতে পারছে না স্বজনরা।
রেলে কাটা পড়ে জজকোর্টের কর্মরত সরকারি দুই কর্মচারির মৃত্যুর ঘটনায় নিহতদের বাসায় এখন চলছে শোকের মাতম। পরিবারের সদস্যরাসহ স্থানীয় এলাকাবাসিও কান্নায় বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন। এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনা কোনভাবেই মানতে যেন পারছেন না নিহতের স্বজনরা।
সোমবার সকাল আটটায় ঘনকুয়াশার মধ্যে অফিসের কাজে বাড়ি থেকে বের হয় আব্দুস সুবাহান ও রুহুল আমিন। মোটরসাইকেল যোগে জেলার পীরগঞ্জ উপজেলা রেল ষ্টেশন আবাসিক এলাকার প্রবেশ রাস্তা দিয়ে পারা পারের সময় রেল লাইনের উপড় মোটরসাইকেল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা দ্রæতযান এক্সপ্রেস নামে ট্রেনটি তাদের ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় সুবাহান ও রুহুল।
দূর্ঘটনার পর খবর পেয়ে পুলিশ, পীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসকর্মী, জজকোর্টের কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের সহায়তায় লাশ উদ্ধারের পর ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়। নিহতদের শেষ দেখা দেখতে মর্গ ও বাসায় ছুটে আসেন সহযোগী ও এলাকাবাসি। এমন মর্মান্তিক দূর্ঘটনায় এলাকা জুড়ে এখন শোকাবহ পরিবেশ বিরাজ করছে। স্বজনদের কান্নায় ভাড়ি হয়ে উঠেছে পরিবেশ।
পরিবারের স্বজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পীরগঞ্জ রেল স্টেশনের রেল ক্রসিংয়ের পাশে সরু রাস্তা দিয়ে পার হচ্ছিল তারা। এসময় মোটরবাইকটি বন্ধ হয়ে গেলে দ্রæতগতির ট্রেনটি তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাদের।
পীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের স্টেশন অফিসার মোঃ মিরাজ আলী জানান, লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সমদ হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ মোঃ রকিবুল আলম জানান, ট্রেনে কাটা পরা দুটি লাশ ময়না তদন্তের জন্য মগ্যে রাখা হয়েছে। রিপোর্টের পর বলা যাবে কতটুকু আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে।
নিহত সুবাহান জেলা সদরের আকচা ইউনিয়নের কাজিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ও সালন্দর ইউনিয়নের দেওগাঁ গ্রামের বাসিন্দা রুহুল আমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *