শুক্রবার, এপ্রিল ১৬

ঠাকুরগাঁওয়ে জমি বিরোধের জের সন্ত্রাসীদের দিয়ে স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

নিউজ ডেস্কঃ ঠাকুরগাঁওয়ে জমি বিরোধের জেরে সন্ত্রাসীদের দিয়ে স্থাপনা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। শনিবার (৫ ডিসেম্বর)সকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী আলহাজ্ব মোঃ খলিলুর রহমান। এর আগে শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে বালিয়াডাঙ্গী  উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
খলিলুর রহমান ও তার পরিবারের লোকজনের অভিযোগ করে বলেন, দুর্গাপুর গ্রামের প্রতিপক্ষ বাবুল হোসেন ও তার ভাইয়েরাসহ ওই উপজেলা শহর থেকে সন্ত্রাসীদের ভাড়া করে পাঁকা ঘড় গুড়িয়ে দেয়। এক যুগ আগে নির্মাণ করা বাথরুম, গবাদি পশুর রক্ষণাবেক্ষণের পাঁকা স্থাপনা ভেঙ্গে প্রায় ১০ লাখ টাকা ক্ষতি করেছে। অন্যায় ভাবে পাকা স্থাপনা ভেঙ্গে নিজেদের গায়ের জোর দেখিয়েছে। তাৎক্ষনিকভাবে স্থানীয় থানা পুলিশকে ফোন করলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত না হয়ে আদালতের আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দেন। আমাদের কাউকে বাড়ী থেকে বের হতে দেয়নি। বের হওয়ার চেষ্টা করলে আমাদের ধাওয়া করেসন্ত্রাসীরা। ভয়ে ঘরের ভিতর চলে যাই। রাতের বেলা বাড়িতে হামলা করার হুমকিও দিয়ে গেছে তারা। এ অবস্থায় প্রশাসনের সহযোগীতা চায় ভুত্তভুগী।
প্রতিপক্ষ বাবুল হোসেন জানান, চলাচলের রাস্তা দেওয়ার জন্য স্থানীয় ভাবে একাধিকবার বিষয়টি নিয়ে শালিস-বৈঠক বসার পর সিদ্ধান্ত হয় বাথরুমের স্থাপনা নিজেই ভেঙ্গে ফেলবেন বলে কথা দেয় খলিলুর রহমান। কিন্তু দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও তা না করায় আমরা বাধ্য হয়ে লোকজনকে নিয়ে পাকা স্থাপনা ভেঙ্গে দিয়েছি। এ ঘটনার জেরে উভয় পক্ষই আইনের আশ্রয় নিবেন বলে জানান।
এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছিল। তা পরিদর্শন করে এসেছে। কোন পক্ষ এখন পর্যন্ত থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *