মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৩

ম্যাজিস্ট্রেট ঢুকলেই দাম কমছে পেঁয়াজের, বাড়ছে বের হলেই!

নিউজ ডেক্সঃ বাজারে মেয়র আর ম্যাজিস্ট্রেট ঢুকতেই পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমে যায় ২০ টাকা। অভিযান শেষে আবারো বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। এমনকি, সঠিক দাম নিয়েও দুরকম বক্তব্য এলো মেয়র আর ব্যবসায়ীদের তরফ থেকে।

রাজধানীর পলাশী কাঁচাবাজারে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের তদারকির প্রথম দিনেই দেখা যায় এমন চিত্র।

মেয়র সাইদ খোকন বলেন, দেশি পেঁয়াজের দাম ৯৬ থেকে ১০৮ টাকা, এটা আজকের (২ অক্টোবর) বেঁধে দেওয়া দর রয়েছে।

তবে, দোকানিরা বলেন কালকের চেয়ে পেঁয়াজের দাম একটু কম। তারা বলেন, কালকে ১০০ টাকা ছিল। আজকে দেশি পেঁয়াজ ৯০ টাকা, ইন্ডিয়ানটা ৭৮ টাকা।

তারা বলেন, আজ দাম কমে এসেছে, আমরাও কমে বেচছি।

মেয়র আর ব্যবসায়ীদের এমন বক্তব্য দেখে মনে হতে পারে পেঁয়াজের দাম পড়ে গেছে। তবে, ম্যাজিস্ট্রেটসহ দক্ষিণ ঢাকার মেয়র রাজধানীর পলাশী কাঁচাবাজারে আসার আগের পরিস্থিতি ছিল একদমই আলাদা।


সময় সংবাদের ক্যামেরায় আগেই ধরা পড়ে গেছে আগের দাম মুছে নতুন দাম লেখার চিত্র। এ বাজারে সরকার নির্ধারিত তালিকা দেখে চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। সবশেষ ২৫ মে আপডেট করা তালিকায় প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ২৫ টাকা।

মেয়র সাইদ খোকন বলেন, যদি কোনো পাইকারি বিক্রেতা মজুদ গড়ে তোলবার চেষ্টা করেন বাড়তি মুনাফার লোভে, তাহলে কিন্তু আমরা বাধ্য হয়ে সেই বিক্রেতার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

ক্রেতারা মনে করছেন, বাজার নিয়ন্ত্রণে খুচরা আর পাইকারি দুই জায়গাতেই সরকারের সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন।

ক্রেতারা বলেন, একটু আগেও ১১০ টাকা করে কিনেছি। মেয়র সাহেব আসার খবরে দাম কমেছে।

বিক্রেতারা বলেন, পেঁয়াজ কিন্তু স্টোরে আছে, তারপরও কি কারণে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে।

ভারত থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ হলেও বেশ কয়েকটি দেশ থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যটি আমদানি করা হচ্ছে। সরকার মনে করছে এর সুফল শিগগিরই পাবেন ভোক্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *