মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬

রংপুর মেরিন একাডেমির শিক্ষা কার্যক্রম জানুয়ারিতে

নিউজ ডেস্ক: রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় নির্মাণাধীন মেরিন একাডেমি প্রকল্পের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে এর শিক্ষা কার্যক্রম চালু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পীরগঞ্জ উপজেলা থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার পশ্চিমে রায়পুর ইউনিয়নের ফলির বিলে ১০ একর জমির ওপর গণপূর্ত অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ১০০ কোটি ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে এই মেরিন একাডেমি নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রকল্পটির দ্বিতীয় দফা মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই এর নির্মাণ কাজ শেষ হচ্ছে বলে গণপূর্ত অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

গণপূর্ত অধিদপ্তরের রংপুর অঞ্চলের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল আলম জানান, বর্তমান সরকারের গৃহীত রূপকল্প-২০২১ এবং রূপকল্প-২০৪১ অনুযায়ী মানবসম্পদের উন্নয়ন, বেকার সমস্যা সমাধান এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে বাংলাদেশের ৪ জেলায় আন্তর্জাতিক মানের মেরিন একাডেমি নির্মাণ প্রকল্পের করা হচ্ছে। এর আওতায় রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় ১০০ কোটি ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে এই মেরিন একাডেমি প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, এই প্রকল্পের আওতায় একাডেমিক ভবন ছাড়াও প্রশাসনিক ভবন, প্যারেড গ্রাউন্ড, ডরমেটরী ভবন, ৭টি আবাসিক ভবন, মসজিদ, অত্যাধুনিক জিমনেসিয়াম, সুইমিংপুলসহ ৩৫টি অবকাঠামোর প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

রংপুরের মেরিন একাডেমি প্রকল্পটি চালু হলে উত্তরাঞ্চলের অবহেলিত এই জনপদের সাধারণ জনগোষ্ঠীর শিক্ষা ও দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে। দেশ-বিদেশের চাহিদা অনুযায়ী দক্ষ নৌ-কর্মকর্তা ও নৌ-প্রকৌশলী তৈরি হবে।

প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কারিকুলাম মোতাবেক ৪ বছর মেয়াদের এই কোর্সের প্রথম পর্যায়ে প্রতি বছর ১০০ জন করে দক্ষ নাবিক ও নৌ-প্রকৌশলী বের হবে। এছাড়া দেশের সকল জেলায় সমুদ্র বিষয়ক জ্ঞান চর্চার সুযোগ তৈরি হবে। এর ফলে দক্ষ ও বিশেষজ্ঞ নাবিক এবং নৌ-প্রকৌশলী তৈরি করে তাদের বিদেশে প্রেরণের মাধ্যমে অধিক পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *