মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬

বুলবুলের আঘাতে কলকাতায় একজনের মৃত্যু

নিউজ ডেক্সঃ শক্তি বাড়িয়ে পশ্চিম বঙ্গ উপকূলে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। যে কোনো মুহূর্তে এই ঝড় আছড়ে পড়তে পারে পশ্চিমবঙ্গ (সাগরদ্বীপ)-বাংলাদেশ (খেপুপাড়া) উপকূলবর্তী এলাকায়। ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৩৫ কিলোমিটার। 

ভারতীয় আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, রাত ৮টা থেকে ১০টার মধ্যেই এই ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়তে পারে। যদিও মাটিতে আছড়ে পড়ার আগে ঝড়ের গতিবেগ কিছুটা কমে ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার হতে পারে। এই মুহূর্তে সাগরদ্বীপ থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড়টি। বুলবুলের প্রভাবে শনিবার (৯ নভেম্বর) সকাল থেকেই কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ বঙ্গের জেলাগুলোতে লাগাতার বর্ষণ চলছে। সাথে চলছে মাঝারি ঝড়ো হাওয়া। 

বুলবুলের প্রভাবে কলকাতার বাবুঘাটসহ রাজ্যটির দক্ষিণবঙ্গের একাধিক ফেরি পারাপার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বন্ধ রয়েছে স্কুল-কলেজও। মৎসজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রাণহানি ঘটেছে একজনের।

দক্ষিণ কলকাতার বালিগঞ্জে গাছ উপড়ে পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। নিহত ব্যক্তির নাম সোহেল শেখ (২৫)। জানা গেছে, বালিগঞ্জের একটি ক্লাবে রান্নার কাজ করতেন বিহারের বাসিন্দা সোহেল। ট্যাংরার বাসা থেকে কাজে যোগ দেওয়ার জন্য দুপুরে ওই ক্লাবে যাচ্ছিলেন। ক্লাবে প্রবেশের মুখেই বিপত্তি ঘটে। একটি গাছ ভেঙে পড়ে তার মাথায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার। 

টুইট করে মমতা জানান, ‘ঘূর্ণিঝড় বুলবুল বাংলার ওপর দিয়ে অতিবাহিত করবে। আমাদের রাজ্য প্রশাসন চব্বিশ ঘণ্টা নজরদারি চালাচ্ছে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আমরা সব রকমের পদক্ষেপ নিয়েছি। বিশেষ কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে এবং জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীকে মোতায়েন করা হয়েছে।’ সেই সাথে মানুষকে অযথা আতঙ্কিত না হয়ে মানুষকে ত্রাণ ও উদ্ধারকাজে প্রশাসনকে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *