বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮

ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডঙ্গীতে টিসিবি পণ্য বিতরণে অনিয়ম

নিউজ ডেক্সঃ ঠাকুরগাঁওয়ে টিসিবি পণ্য বিতরণে অনিয়নের অভিযোগ উঠেছে বিশ্বনাথ সাহা নামে টিসিবি ডিলারের বিরুদ্ধে। শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের রত্নাই উদয়পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে টিসিবির পণ্য বিতরণের সময় এমন অনিয়মের সত্যতা পাওয়া যায়।
স্থানীয়রা জানায়, ওই উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নে ১ হাজার ৬০০ জনকে টিসিবির পণ্য বিতরণের কথা থাকলেও সেখানে টিসিবির পণ্য বিতরণ করা হয়েছে চার থেকে পাঁচশ জনকে। এমন অভিযোগে টিসিবির পণ্য অনিয়মের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমজানখোর ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে দুইটি ভিডিও পোস্ট করেন।
সেখানে উল্লেখ করেন ইউপি সদস্য ডিলার বিশ্বনাথ সাহার কাছে চালান রশিদ দেখতে চাইলে সে কোনরকম চালানের রশিদ দেখাতে পারেনি। অনেক ভুক্তভোগী স্লিপ নিয়ে গেলেও তারা টিসিবি পণ্য পাননি এবং হয়রানির শিকার হয়েছেন।
টিসিবির পণ্য নিতে আসা আতাবুর রহমান রহমান, আব্দুল আলিম, জরিনা বেগমসহ অনেকে অভিযোগ করে বলেন, আমজানখোর ইউপি চেয়ারম্যান তালিকা দেখে আমাকে একটি স্লিপ দিয়েছে কিন্তু এখানে আসে আমাকে পণ্য দিচ্ছেনা ডিলার ও তার লোকজন। তারা বলছে তালিকায় আপনার কোন নাম নেই। আমরা টিসিবির পন্য পেয়েছিলাম। কিন্তু এবার এসে দেখি আমাদের নাম নেই তালিকায়।
আমজানখোর ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন জানান, আমজানখোর ইউনিয়নে মোট ১ হাজার ৬’শ টি টিসিবির প্যাকেজের বরাদ্দ রয়েছে। তবে ডিলার বিশ্বনাথ সাহা ৩০০-৪০০ টি প্যাকেজ নিয়ে আসে আমাদের বলে ১ হাজার ৬’শ জনকে টিসিবির পণ্য দেওয়া হবে। আমি ও ইউনিয়নের আরও ইউপি সদস্যরা তার কাছে মাল ডেলিভারির রশিদ দেখতে চাইলে তিনি নানা রকমের কথা বলে এড়িয়ে যান। টিসিবির পন্য বিতরণ নিয়ে আমাদের কোন রকমের অবহিত করেননি।
এ বিষয়ে টিসিবির ডিলার বিশ্বনাথ সাহা বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে মাল দেয়া হচ্ছে। কতগুলো কার্ডধারিদের মাল দেয়া হচ্ছে তাও তিনি বলতে রাজি নন।
এ বিষয়ে আমজানখোর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আকালু ডংগা বলেন, টিসিবির পণ্য বিতরণের জন্য আমাকে কোন প্রকারের দায়িত্ব দেয়নি তাই আমি সেখানে যাইনি। আর আমি যাদের স্লিপ দিয়েছি তাদের নাম তালিকায় দেখে দিয়েছি। এখন তাদের কেন টিসিবির পণ্য দিচ্ছে না তা আমি জানি না।

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার যোবায়ের হোসেন বলেন, ইউপি সদস্য ডিলারের কাছে শুধু তালিকা দেখতে চেয়েছিল এ বিষয়টি শুনেছি। এছাড়া অনিয়মের কোন খবর আমার জানা নেই বলে জানান তিনি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.