মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬

করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাবা ছেলের মৃত্যু মারা গেলেন ঠাকুরগাঁওয়ের আজাদ

নিউজ ডেস্কঃ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ঠাকুরগাঁওয়ের আজাদ (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) ৪০ বছর বয়সে আজ তিনি দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। আজাদের অকাল মৃত্যুতে পাড়া প্রতিবেশী আত্মীয় স্বজন ও বন্ধুরা গভীর ভাবে শোকাহত। আজাদ এক্স-ক্যাডেট এসোসিয়েশন ঠাকুরগাঁও ইউনিটের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও অর্থ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছিলেন। নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকেই তার ছিল আয়ের উৎস। পরিবারের উপার্যনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে দিশেহারা পরিবার। আজাদের পরিবারে স্ত্রী ও তিন মেয়ে রেখে গেছেন। মৃত আবুল কালাম আজাদ জেলা শহরের শাহপাড়ার শামসুল হকের ছেলে।
মহান আল্লাহর নিকট মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করেছেন এলাকার সবাই । তার এমন মৃত্যু যেন কোনভাবেই মানতে পারছে না কেউ। তার পরিবারের পক্ষ থেকে সবার কাছে আজাদের জন্য দোয়া কামনা করেছেন। আল্লাহ যেন তাকে বেহেস্ত নসিব করেন আমিন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলার হরিপুর উপজেলায় চার ঘন্টার ব্যবধানে পিতা-পুত্র মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন হরিপুর সদর ইউনিয়নের দনগাঁও গ্রামের মৃত্যু আব্দুল গফ্ফারের ছেলে ইয়াকুব আলী (৭৫) ও ইয়াকুবের ছেলে আজগর আলী (৫৫)।
বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় নিজ বাসভবনে ইয়াকুব আলী এবং বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় আজগর আলী এম আব্দুর রহিম দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এমন মর্মান্তিক মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মনিরুল ইসলাম খান পিতা-পুত্র করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় জেলা জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন জেলায় কয়েকজন মারা গেলেও সিভিল সার্জন অফিসের তালিকায় বাদ পরছে অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *